ঢাকা সোমবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ই আশ্বিন ১৪২৬


শাহজাদপুরে পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো নবম শ্রেণীর ছাত্রী


১৫ আগস্ট ২০১৯ ২০:২৫

আপডেট:
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:০১

শাহজাদপুরে পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো নবম শ্রেণীর ছাত্রী

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো স্কুল ছাত্রী হ্যাপী খাতুন নামের ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরী। সে জামিরতা পূর্ব পাড়া গ্রামের মোঃ হাবিবুর রহমান স্বপনের মেয়ে ও জামিরতা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, বৃহস্পতিবার শাহজাদপুর উপজেলার জামিরতা পূর্ব পাড়ার হাবিবুর রহমান স্বপনের মেয়ে হ্যাপি খাতুনের সাথে একই উপজেলার খুকনী ইউনিয়নের এক প্রবাসী যুবকের বিয়ের সব ব্যবস্থা সম্পন্ন করে কনে পক্ষ। দুপুরের পরে আগত কিছু আত্মীয় স্বজনদের খাওয়ানোও সম্পন্ন হয়, এখন অপেক্ষা ছিল শুধু বড় যাত্রীর।

এরই মাঝে বাল্যবিয়ের খবর পায় শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমান। এস আই আমজাদ হোসেনের নেতৃত্বে তিনি পুলিশের একটি দল বিয়ে বাড়িতে পাঠান। পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে কনের বাবা সহ বিয়ে বাড়ির সকল পুরুষ সদস্য গাঁ ঢাকা দেয়। বাড়ির মহিলা সদস্যরাও কনের জন্মসনদ অথবা কোন কাগজ দেখাতে পারেনি।

পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ঘটনাস্থলে এসে জানান, কনে এখনও সাবালিকা হয়নি। তখন পুলিশ উপস্থিত সবাইকে বিয়ে বন্ধ করার নির্দেশ দেন ও বিয়ের গেট ও প্যান্ডেল ভেঙে দেয় ।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত সাংবাদিকদের এস আই আমজাদ হোসেন জানান, সরকারের বাল্যবিয়ে সম্পর্কিত আইনের আওতায় হওয়ায় আমরা বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছি।