ঢাকা সোমবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ই আশ্বিন ১৪২৬

বাবার কবরে এক মুঠো মাটিও দিতে দেয়নি এরিককে


১৭ জুলাই ২০১৯ ১৭:৩২

আপডেট:
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৪:১৭

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কবরে ছেলে এরিককে এক মুঠো মাটি দেয়ার সুযোগও দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন তার (এরশাদ) সাবেক স্ত্রী বিদিশা এরশাদ।

বুধবার দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে নিজের ফেসবুক পেইজে দেয়া এক স্ট্যাটাসে এই অভিযোগ করেন তিনি। বিদিশা এ নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এরশাদ তার ছেলে এরিককে পল্লী নিবাস দিয়ে গেছেন এমন দাবি করে বিদিশা ফেসবুকে লিখেন, এই পল্লী নিবাস তার আদরের ছেলে এরিককে দিয়ে গেছেন তার বাবা। কিন্তু এক মুঠো মাটি ও তার বাবার কবরে দিতে দেয়নি এরিককে।

স্ট্যাটাসে তিনি রংপুরের মানুষের কাছে সারা জীবন কৃতজ্ঞ থাকার কথাও জানান।

পাঠকদের জন্য বিদিশা এরশাদের স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘চির নিদ্রায় শায়িত হলেন পল্লীবন্ধু পল্লী নিবাসে। যে পল্লী নিবাস তার আদরের ছেলে এরিককে দিয়ে গেছেন তার বাবা। কিন্তু এক মুঠো মাটিও তার বাবার কবরে দিতে দেয়নি এরিককে। রংপুরের মানুষের প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতা থাকবে সারা জীবন।’

এর আগে এক স্ট্যাটাসে বিদিশা লিখেছেন, ছেলে এরিকের কান্নায় পাথর গলে যায়। কিন্তু রাজনীতিবিদদের হৃদয় গলে না।

বাবার মৃত্যুর শোকে শোকাহত এরিকের সঙ্গে এই কঠিন সময় মা বিদিশাকে দেখা করতে না দেয়ায় তিনি ক্ষুব্ধ। পাশাপাশি এরশাদকে শেষ দেখা দেখতে তাকে বাধা দেয়ার অভিযোগও তুলেছেন বিদিশা।

প্রসঙ্গত রোববার সকাল পৌনে ৮টায় রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন মৃত্যুবরণ করেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তার বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর। তিনি রক্তে সংক্রমণসহ লিভার জটিলতায় ভুগছিলেন। রোববার বাদ জোহর ঢাকা সেনানিবাস কেন্দ্রীয় মসজিদে তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এর পর সোমবার বেলা ১১টায় জাতীয় সংসদে দ্বিতীয় এবং বাদ আসর বায়তুল মোকাররম মসজিদে তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। রংপুরের কালেক্টরেট ঈদগাহ ময়দানে জানাজা শেষে মঙ্গলবার তাকে পল্লী নিবাসে সমাহিত করা হয়।


নতুনসময়/এমএন