ঢাকা শুক্রবার, ২৩শে আগস্ট ২০১৯, ৯ই ভাদ্র ১৪২৬

প্রযুক্তির কর্মক্ষেত্রে পুরুষরা কখনো নারীর প্রতিদ্বন্দ্বী নয়


২৬ মে ২০১৯ ১৭:৪৪

আপডেট:
৩১ মে ২০১৯ ১২:৫১

প্রযুক্তির কর্মক্ষেত্রে নারী আর পুরুষে ভেদাভেদ করার কোনো সুযোগ আর এখন নেই। দেশে এখন সবক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হয়েছে বলে জানান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান। তিনি বলেন, দেশ পরিচালনার মতো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বও এখন নারীদের হাতে। দক্ষতার সঙ্গে বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যাওয়ার এই পথচলায় প্রতিবন্ধকতা আসবেই। তবে নারীর এই অগ্রযাত্রাকে কেউ রুখে দিতে পারবে না। গত শনিবার ধানমন্ডির বিসিএস ইনোভেশন সেন্টারে ‘প্রযুক্তির কর্মক্ষেত্রে নারী’ শীর্ষক মুক্ত সংলাপ এবং প্রকল্প উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান।

পুরুষরা কখনো নারীর প্রতিদ্বন্দ্বী নয়। পুরুষরাই নারীর পথকে সহযোগী হিসেবে সহজ করবেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মহীবুল হাসান চৌধুরী। তিনি বলেন, আজ থেকে ১০ বছর আগেও নারীদের নিয়ে যা ভাবা যেতো না, সেই ভাবনাকেও অতিক্রম করে নারীরা প্রত্যাশার চেয়েও বেশি উন্নতি সাধন করেছে।

বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) অফিসে আয়োজিত মুক্ত সংলাপে প্যানেলিস্ট হিসেবে গ্রিন ডেল্টা ইনসিওরেন্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান কার্যনির্বাহী ফারজানা চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারপারসন ড. লাফিফা জামাল, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ড. নোভা আহমেদ, এমআইটি-১৬ তামান্না ইসলাম ঊর্মি, গিগাটেক লিমিটেডের প্রধান কার্যনির্বাহী সামিরা জুবেরি এবং গ্রামীণফোনের মহাব্যবস্থাপক শায়লা রহমান অংশ নেন। গণিত অলিম্পিয়াডে মেয়েদের সীমিত অংশগ্রহণ এবং তথ্যপ্রযুক্তিতে নারী শিক্ষার ভূমিকাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলচনা হয় এই সংলাপে।


নতুনসময়/এনএইচ