ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ১৭ই অক্টোবর ২০১৯, ৩রা কার্তিক ১৪২৬

রেডিসনে ডেকে নিয়ে সাংবাদিকদের অপমান করল ভিভো (ভিডিও)


১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১১:৪৯

আপডেট:
১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১১:৫৬

ছবিতে ভিভো কর্তৃপক্ষ ও সাংবাদিকেরা

এ যেন ডেকে নিয়ে সাংবাদিকদের অপমান করল চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি ‘ভিভো’। শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর রেডিসন হোটেলে ছিল ভিভোর নতুন স্মার্টফোন উন্মোচন অনুষ্ঠান। আগের দিন সকল তথ্য প্রযুক্তি বিটে দায়িত্বরত সাংবাদিকদের নিমন্ত্রণ দেয়া হয়েছিল ভিভোর নতুন স্মার্টফোন উন্মোচন অনুষ্ঠান কাভারেজ দেয়ার জন্য। কিন্তু অনুষ্ঠান স্থলে পৌঁছানোর পর থেকেই বিভিন্ন ইস্যুতে বিব্রত হতে হয় সাংবাদিকদের। সংবাদ সংগ্রহ ও প্রকাশের জন্য সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ জানিয়েও তাদের প্রতি অসৌজন্যমূলক আচরণে অনুষ্ঠান বর্জন করেন অধিকাংশ দায়িত্বরত সাংবাদিকেরা।

অনুষ্ঠানের শুরুর দিকে কিছু সংখ্যক সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেওয়া হলেও পরবর্তীতে আর কোন সাংবাদিকদের প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। অনুষ্ঠান স্থলে সাংবাদিকদের জন্য বরাদ্দকৃত অংশপূর্ণ হয়ে যাওয়ার অজুহাত দেখিয়ে সাংবাদিকদের প্রবেশে বাঁধা দেওয়া হয়। প্রায় ১ ঘণ্টা ধরে মহান পেশায় নিয়োজিত এ সকল সাংবাদিকদের দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। এতে বিব্রত বোধ করেন তারা। অথচ অনুষ্ঠান স্থলে ভিভো’র নিজেদের লোকজনই ছিলো ৯০ শতাংশ। যা এক প্রকার হাস্যকর ঘটনা বলা চলে।

অন্যদিকে যেসব সাংবাদিকদের অনুষ্ঠান স্থলের মূল অংশে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় তাদের অনেকেরই ছিল না বসার আসন। এমনকি সংবাদ কর্মীদের জন্য বরাদ্দকৃত টেবিলেও বসে থাকতে দেখা যায় ভিভোর কর্মকর্তাদের। ফলে পর্যাপ্ত আসন না থাকায় প্রায় দু ঘণ্টা ধরে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় সাংবাদিকদের। এদের মধ্যে দেশের জাতীয় দৈনিকের জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকেরাও ছিলেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠানটির জনসংযোগ কার্যক্রমে নিয়োজিত এজেন্সির সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করা হলেও কোন সমাধান দিতে পারেননি তারাও। এমনকি উদ্ভুত পরিস্থিতিতে কোন কার্যকরী পদক্ষেপ নিতেও অনীহা জানায় ভিভো বাংলাদেশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। দৈনিক বাংলাদেশের খবর পত্রিকার প্রতিবেদক রেজাউল করিম এ সময় অভিযোগ করে বলেন, সাংবাদিকদের যদি দরকার নাই ছিলো তাহলে আমন্ত্রণ জানিয়ে আমাদেরকে এখানে আনার কোন দরকার তো ছিলো না।

একটি দৈনিক পত্রিকার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বলেন, আমরা সাংবাদিকেরা তো পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য আসি। আর তাও এ ধরণের অনুষ্ঠানে আসা হয় আমন্ত্রণ জানানো হয় বলে। কিন্তু আমাদেরকে ডেকে এনে এমন অসৌজন্যমূলক আচরণ করার তো অধিকার কারও নেই। এমনটা মেনে নেওয়া যায় না।

এ ঘটনায় আরেক প্রতিবেদক বলেন, এমন আচরণের প্রতিবাদ করা উচিৎ। আর নয়তো অন্যান্য জায়গায়ও এভাবেই বিব্রত হতে হবে সাংবাদিকদের। কিন্তু বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সংবাদ সংগ্রহের জন্য আমাদেরকে যারা আমন্ত্রণ করেন তাদের বোঝা উচিৎ এমন আচরণ কখনও মেনে নেওয়া হবে না। আর যারা এমন করবেন তাদেরকে আমরা কাভারেজ দিবো না।

এক পর্যায়ে অনুষ্ঠান স্থলের ভেতরে থাকা সাংবাদিকেরা বাইরে বেরিয়ে আসলে সব সাংবাদিকেরা একত্রে ভিভো’র সংবাদ সংগ্রহকে ‘বয়কট’ ঘোষণা করে। আর এতে টনক নড়ে ভিভো কর্তৃপক্ষের। অনুষ্ঠান স্থল থেকে সাংবাদিকেরা বেরিয়ে আসলে সাংবাদিকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেন প্রতিষ্ঠানটির চীনা কর্মকর্তারা। বিষয়টিকে একটি ‘ভুল বোঝাবুঝি’ হিসেবে উল্লেখ করে পরিস্থিতিকে ‘ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে’ বিবেচনার জন্য অনুরোধ করেন

এক পর্যায়ে জনসংযোগ এজেন্সির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. তরিকুল ইসলাম সুমনসহ প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন কর্তাদের অনুরোধে মূল অনুষ্ঠানে প্রবেশ করেন সাংবাদিকেরা।

এমএ