ঢাকা সোমবার, ২০শে মে ২০১৯, ৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬


শুরু হলো বেক্সিমকোর ডিটিএইচ এর যাত্রা


১৬ মে ২০১৯ ১৪:১৫

আপডেট:
১৮ মে ২০১৯ ১৭:৪২

সংগৃহীত ছবি

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে ‘আকাশ’ ব্রান্ড নাম দিয়ে নতুন এই টপ বক্স সেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্সের চেয়ারম্যান শায়ান এফ রহমান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডিএস ফায়সাল হায়দার প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়, আগামী ১৯ মে থেকে ২০টি জেলায় আকাশ ডিটিএইচের বাণিজ্যিক সেবা পাওয়া যাবে। ভ্যাটসহ মাসিক খরচ পড়বে ৩৯৯ টাকা। এইচডি সেট টপ বক্স, বহুমুখী ব্যবহার উপযোগী রিমোট কন্ট্রোল, তাপ ও বৃষ্টি প্রতিরোধী ডিশ এবং অন্যান্য যন্ত্রাংশসহ ‘আকাশ’ ডিটিএইচ এর সংযোগ নিতে গুনতে হবে ৬ হাজার ৪৯৯ টাকা।

প্রাথমিকভাবে দেখা যাবে দেশ-বিদেশের ১১৫টি চ্যানেল। অন্যান্য সুবিধার মধ্যে রয়েছে প্রোগ্রাম রিমাইন্ডার, ফেভারিট প্রোগ্রাম লিস্ট ও প্যারেন্টাল কন্ট্রোল। পরে আরও নতুন নতুন চ্যানেল যুক্ত হওয়ার পাশাপাশি ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা যুক্ত হবে বলে বেক্সিমকো কমিউনিকেশনের কর্মকর্তারা জানান। প্রথম পর্যায়ে ঢাকা, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, নরসিংদী, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও সুনামগঞ্জে ডিটিএইচে সেবা পাওয়া যাবে।

অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সমুদ্র, সীমান্ত জয়ের পর বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যেমে অন্তরীক্ষও জয় করেছে। ডিটিএইচ প্রযুক্তি বাজারজাত করার মাধ্যমে বেক্সিমকো কমিউনিকেশন আকাশ জয়ের অংশীদার হল। এর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক যাত্রা শুরু হচ্ছে।

স্যাটেলাইট টিভি স্টেশনগুলোর ছবি নিজেদের স্টেশনে ধারণের পর তা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের ট্রান্সপন্ডার ব্যবহার করে গ্রাহকের টেলিভিশন সেটে পাঠানো হবে বলে অনুষ্ঠানে জানান ‘আকাশ’ এর সিইও ফয়সাল হায়দার।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, এই সেবা চালু হলে এর মাধ্যমে সম্প্রচার শিল্প আরও শৃঙ্খলার মধ্যে আসবে। অনেক বিদেশি চ্যানেল নীতিমালা লংঘন করে এই দেশে সম্প্রচারে আছে, এই দেশের বিজ্ঞাপন প্রচার করছে। অবিলম্বে এমনটি বন্ধ না হলে আগামী জুলাইয়ের পর এর বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, আকাশ ডিটিএইচের কারণে অবাধ তথ্য প্রবাহ আরও সহজে মানুষের কাছে পৌঁছে যাবে। এর প্রয়োগ যেন সাধারণ মানুষের সহজবোধ্য হয়, কর্তৃপক্ষকে সেই দিকে নজর রাখতে হবে।

নতুনসময়/রাখি/আইআর