ঢাকা মঙ্গলবার, ২০শে আগস্ট ২০১৯, ৬ই ভাদ্র ১৪২৬


ঈদ উপলক্ষে ১৭ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট


১৭ মে ২০১৯ ১১:০৩

আপডেট:
২০ আগস্ট ২০১৯ ১৩:৫৯

সংগৃহীত

পবিত্র ঈদুল ফিতরে সালামি হিসেবে নতুন টাকা পেতে পছন্দ করে ছোট-বড় সবাই। তাই দিন দিন এর চল বাড়ছে। এ কারণে ঈদ এলেই নতুন টাকা বদলে নিতে ব্যাংকগুলোতে ভিড় জমাতে শুরু করে জনসাধারণ। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বাজারে আসছে ১৭ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট। আগামী ২২ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত নতুন নোট বিনিময় করবে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, নতুন টাকা প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ ব্যাংক তার সব অফিসের পাশাপাশি মতিঝিল অফিসে বছর তিন ধরে বায়োমেট্রিক বা হাতের ছাপ পদ্ধতিতে তথ্য সংরক্ষণের ভিত্তিতে জনসাধারণের জন্য নতুন নোট বিনিময়ের ব্যবস্থা করছে। এবারও এর ব্যতিক্রম হবে না। অন্যবারের মতো এবারও রোজার ঈদে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পাশাপাশি রাজধানীর ২৮টি ব্যাংকের ৩০ শাখা থেকে নতুন নোট বিনিময়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তবে এবার ২ টাকা ও ৫ টাকার নতুন নোট বিনিময়ের সুযোগ থাকছে না। ১০, ২০, ৫০ টাকার পাশাপাশি ১০০ টাকার নতুন নোট বদলে নেওয়া যাবে। একজন ব্যক্তি ১০ টাকা, ২০ টাকা, ৫০ টাকা এবং ১০০ টাকার একটি করে প্যাকেট বদলে নিতে পারবেন; সে হিসাবে সর্বোচ্চ ১৮ হাজার টাকার নতুন কাগুজে নোট বদলানোর সুযোগ থাকছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, ঈদে নতুন নোটের চাহিদা মাথায় রেখে প্রতিবছরই পর্যাপ্ত নতুন নোট বাজারে ছাড়ে বাংলাদেশ ব্যাংক। নতুন নোট নিয়ে যাতে কেউ ব্যবসা না করতে পারে সে লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিসে বিশেষ বিনিময় কাউন্টারও খোলা হয়। এ ছাড়া ৩০টি বাণিজ্যিক ব্যাংক শাখা থেকেও নতুন নোট বিতরণ করা হয়।

এবার এনসিসি ব্যাংকের যাত্রাবাড়ী শাখা, জনতা ব্যাংকের আব্দুল গণি রোড করর্পোরেট শাখা, অগ্রণী ব্যাংকের জাতীয় প্রেস ক্লাব কর্পোরেট শাখা, এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের মিরপুর শাখা, সাউথইস্ট ব্যাংকের কারওয়ান বাজার শাখা, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের বসুন্ধরা সিটি (পান্থপথ) শাখা, উত্তরা ব্যাংকের চকবাজার শাখা, সোনালী ব্যাংকের রমনা করপোরেট শাখা, ঢাকা ব্যাংকের উত্তরা শাখা, আইএফআইসি ব্যাংকের গুলশান শাখা, ন্যাশনাল ব্যাংকের মহাখালী শাখা, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের মোহাম্মদপুর শাখা, জনতা ব্যাংকের রাজারবাগ শাখা, পূবালী ব্যাংকের সদরঘাট শাখা, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের মালিবাগ শাখা, ওয়ান ব্যাংকের বাসাবো শাখা, ব্র্যাক ব্যাংকের শ্যামলী শাখা, ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের এসএমই অ্যান্ড অ্যাগ্রিকালচার শাখা দক্ষিণখান, প্রিমিয়ার ব্যাংকের বনানী শাখা, ব্যাংক এশিয়ার ধানমন্ডি শাখা, দি সিটি ব্যাংকের বেগম রোকেয়া সরণী শাখা, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের নন্দীপাড়া শাখা, প্রাইম ব্যাংকের এ্যালিফেন্ট রোড শাখা, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের নারায়ণগঞ্জ শাখা, এক্সিম ব্যাংকের শিমরাইল শাখা, ইসলামী ব্যাংকের গাজীপুর চৌরাস্তা শাখা, ইউসিবিএলের গাজীপুর চৌরাস্তা শাখা, উত্তরা ব্যাংকের সাভার শাখা, মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের সাভার শাখা এবং ট্রাষ্ট ব্যাংকের কেরানীগঞ্জ শাখা।’

নতুনসময়/আল-এম,