ঢাকা শনিবার, ২৩শে মার্চ ২০১৯, ১০ই চৈত্র ১৪২৫


মাদক ব্যবসায়ীদের প্রতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কঠোর হুঁশিয়ারি


১৪ মার্চ ২০১৯ ১৭:৫৩

আপডেট:
১৪ মার্চ ২০১৯ ২১:৪২

ছবি সংগৃহিত

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল মাদক ব্যবসায়ীদের কঠোর ভাবে হুশিয়ার করলেন। তিনি বলেন যে যত ক্ষমতাবানই হোক, কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এ বিষয়ে আরও কঠোর ব্যবস্থা নেব। আপনারা দেখেছেন মাদক ব্যবসায়ীদের পরিণতি কী হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রামের রাউজানে মাদক ও জঙ্গিবাদবিরোধী সমাবেশ ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি আরও বলেন, আমরা মাদক আইন সংশোধন করেছি। শুধু আইন নয়, এর বাইরে আরও অনেক নতুন উপাদান আছে, যা আমরা সামনে মাদক নিয়ন্ত্রণে ব্যবহার করবো।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন কী অবস্থার মধ্যদিয়ে আমরা ক্ষমতা গ্রহণ করেছিলাম। প্রথমে সাঈদীকে চাঁদে দেখা যায় বলে তাণ্ডব দেখেছি। সারাদেশে প্রায় দেড়শ মানুষ নিহত হয়েছেন। ২৭ জন পুলিশ সদস্য শহীদ হয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে তা দমন করেছি।

‘তারপর আমরা জঙ্গিবাদের উত্থান দেখলাম। হলি আর্টিজান, শোলাকিয়ার হামলার ঘটনা দেখেছি। শিয়াদের মিছিলে হামলা হয়েছে। পঞ্চগড়ে ফ্রান্সের এক নাগরিকসহ কয়েকটি হত্যার ঘটনা ঘটেছে। একটা মানুষ নিজ দেশ ছেড়ে বাংলাদেশে এসেছে। ধর্ম ত্যাগ করে মুসলমান হয়েছে, তারপরেও তাকে খুন করা হয়েছে, বলেন আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেন, আপনারা দেখেছেন, জঙ্গিদের লাশ গ্রহণ করেনি তাদের পরিবার। আনজুমান মফিদুল ইসলামে দিয়েছি। আপনাদের বলব-ভাই, বোন, ছেলে, মেয়ে কোথায় যায়; কী করে খবর রাখেন। তবেই জঙ্গিবাদ দূর করা সম্ভব।'

পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, ‘পুলিশকে প্রতিরোধ করতে গিয়ে মাদক ব্যবসায়ীদের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ কাওকে হত্যা করেনি।

রাউজানের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, ‘রাউজান পুলিশের আওতার বাইরে। এটা নিয়ে মাথা ঘামাতে হয় না। রাস্তা দিয়ে আসার সময় পরিষ্কার রাস্তাঘাট দেখেই বুঝতে পেরেছি, আমরা রাউজান পৌঁছে গেছি। তবে শুধু রাউজানকে মাদক বা সন্ত্রাস মুক্ত রাখলে হবে না। আশপাশের রাঙ্গুনিয়া, কাপ্তাই, রাঙ্গামাটি থেকে আসা গাড়ি দিয়ে যেন মাদকের চালান যেতে না পারে সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।

রাউজানের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শামীম রেজার সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন রাউজানের সংসদ সদস্য এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী, চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মাশহুদুল কবির ও রাউজান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল।

নতুনসময় / আইআর