ঢাকা সোমবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ই আশ্বিন ১৪২৬


তিস্তা চুক্তি নিয়ে আগের অবস্থানে অনড় ভারত


২০ আগস্ট ২০১৯ ১৪:৩০

আপডেট:
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৪:২১

সংগৃহীত ছবি

বাংলাদেশ ও ভারতের মাঝে দ্বিপাক্ষিক বহু বিষয়ে চুক্তি সম্পূর্ণ হয়েছে। তবে বাংলাদেশের অন্যতম দাবি, তিস্তা চুক্তির বিষয়ে ভারত আগের অবস্থানেই অনড় বলে জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।
আজ মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্র পর্যায়ের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা জানান।
আজ বেলা ১১টার দিকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে জয়শঙ্করের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শুরু হয়। প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে চলা এ বৈঠকে তিস্তা চুক্তিসহ অমীমাংসিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।
এর আগে নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশ সফরে এসে আশ্বস্ত করেছিলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলেই তিস্তা চুক্তি হবে। সেই অঙ্গীকারে ভারত এখনো অনড় রয়েছে। রাজ্য সরকারকে বুঝিয়ে অতিদ্রুত তিস্তা চুক্তি করা হবে।
তবে এবার আশায় গুড়ে বালি বাংলাদেশের। বৈঠক থেকে বের হয়ে জয়শঙ্কর বলেন, তিস্তা চুক্তির বিষয়ে নরেন্দ্র মোদি যে প্রতিশ্রুতি বাংলাদেশকে দিয়েছে, তাতে ভারত অনড়। সেটা নিয়ে কাজও করছে সরকার। এ ছাড়া যোগাযোগ, জ্বালানি ও বাণিজ্য বৃদ্ধিতে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করে যাবে।
এসময় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনে ভারতের সহযোগিতা অব্যাহত থাকার অঙ্গীকার পুনোব্যক্ত করেন।
আসামের এনআরসি নিয়ে বাংলাদেশ উদ্বিগ্ন এমন প্রশ্নের জবাবে জয়শঙ্কর বলেন, জাতীয় নাগরিক পুঞ্জী (এনআরসি) ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এটা নিয়ে চিন্তার কিছু নেই।
আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ধানমন্ডি-৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এর পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাদুঘর পরিদর্শন করেন তিনি। বেলা ১১টায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে যোগ দেন জয়শঙ্কর।