ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩রা আশ্বিন ১৪২৬


অবশেষে সাইনবোর্ড সরাতে বাধ্য হলেন রাজশাহী কারা কর্তৃপক্ষ


১০ জুন ২০১৯ ১১:৫৮

আপডেট:
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৮:১৩

সংগৃহীত
পদ্মা নদীর তীরে কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তারা। কর্মযজ্ঞ শুরু হলে আন্দোলনে নামে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন। অবশেষে অন্যত্র কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। এরপর রবিবার নদীর তীর থেকে সাইনবোর্ডটি সরিয়ে নেওয়া হয়। 
 
রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার হালিমা খাতুন জানান, অন্যত্র কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি নির্মাণের সিদ্ধান্ত হওয়ার কারণে সেখান থেকে তাদের সাইনবোর্ড তুলে ফেলা হয়েছে। 
 
নদীর বুক থেকে সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও শহর কেন্দ্রীক পদ্মা তীরবর্তী এলাকাকে হেরিটেজ অঞ্চল ঘোষণাসহ ছয় দফা দাবিতে আন্দোলন করে আসছে রাজশাহীর সামাজিক সংগঠনগুলো। 
 
পদ্মা বাঁচাও, স্বাধীনতা চর্চা কেন্দ্র, তারুণ্যের শক্তি ও পরিচ্ছন্ন রাজশাহী নামের এই সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা গত ১৯ মে থেকে পদ্মা নদী বাঁচানোর লক্ষ্যকে সামনে রেখে কারারক্ষী প্রশিক্ষণ একাডেমিসহ নদীর বুক থেকে সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও শহর কেন্দ্রিক পদ্মা তীরবর্তী এলাকা হেরিটেজ অঞ্চল ঘোষণাসহ ছয় দফা দাবিতে আন্দোলন করে আসছি।
 
সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখেছি যে, রাজশাহী কারাগার কর্তৃপক্ষ পদ্মার বুক থেকে কারারক্ষী প্রশিক্ষণ একাডেমির সাইন বোর্ডসহ তাদের সব অস্থায়ী স্থাপনা ও পাহারা সরিয়ে ফেলেছে। আমরা মনে করি কারা কর্তৃপক্ষ রাজশাহীবাসীর চাওয়া পাওয়ার প্রতি সম্মান জানিয়ে সঠিক ভূমিকা রেখেছেন।’
 
নতুনসময়/আল-এম