ঢাকা সোমবার, ১৪ই অক্টোবর ২০১৯, ৩০শে আশ্বিন ১৪২৬


খালেদার বিচার নিয়ে ষড়যন্ত্র, অডিও ফাঁস


২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৫:৫৮

আপডেট:
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৫:৫৯

ফাইল ছবি

কারাগারে বসবাসরত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিচারকে কেন্দ্র করে দলটির মধ্যে চলছে ষড়যন্ত্র। বুদ্ধিজীবী ড. জাফরউল্লাহ চৌধুরী খালেদা জিয়ার বিচার নিয়ে তার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়ার সঙ্গে ফোনালাপ করেছেন। তারা প্রায় আধা ঘণ্টা ষড়যন্ত্রমূলক আলাপ-আলোচনা করেছেন।

ফাঁস হওয়া আড়াই মিনিটের ফোনালাপের কথোপকথন নতুনসময়ের পাঠকদের উদ্দেশ্যে হুবহু তুলে ধরা হলো:

সানাউল্লাহ: জ্বি, সালামআলাইকুম স্যার!

জাফরুল্লাহ: সানাউল্লাহ, তোমাকে আমি কয়েকবার ফোন করেছিলাম।

সানাউল্লাহ: স্যার, স্যার। সরি স্যার। ঐ যে গোসলে ছিলাম।

জাফরুল্লাহ: হ্যা বুজছি, বোধ হয় মসজিদে নামায টামাজে গেসিলা। শোনো আমি একটা কথা বলতে চাচ্ছি।

সানাউল্লাহ: জ্বী স্যার।

জাফরুল্লাহ: তোমরা লইয়্যাররা কোর্ট বয়কট করছ না কেন?

সানাউল্লাহ: স্যার। ঐ যে বয়কটের মধ্যে সিনিয়ররা কেউ যাচ্ছে না।

জাফরুল্লাহ: আমার মনে হয় কি। আমার মনে হয় বারে বারে বলতে চাচ্ছি যেটা বকশীবাজারের বিরুদ্ধে বলছি না। এখনও আমি বলি যেহেতু জেলখানার কোর্ট ইজ অনৈতিক কোর্ট। উনি তো যাবেনই না। উনার লইয়্যাররা ও যেও না।

সানাউল্লাহ: হ্যা ঐ যে সিনিয়ররা আসে ঢাকার বাইরে আসবে তারপরে আমরা সিদ্ধান্ত নেব।

জাফরুল্লাহ: না না। এটা হলো প্রিন্সিপালের কথা আমি যেটা তোমাদেরকে বোঝাতে চাচ্ছি

সানাউল্লাহ: হ্যা বুইঝা গেছি স্যার।

জাফরুল্লাহ: আমাদের বলতে হবে যে প্রিন্সিপালের কথা। ইভেন কি কামাল হোসেনও বলছে, জেলখানার ভেতরে কোর্ট অনৈতিক।

সানাউল্লাহ: জ্বী আচ্ছা। আমি ঐ যে বসবে তো বলব।

জাফরুল্লাহ: সানাউল্লাহ আমি মনে করি কি উনি যাবেন না। আমরাও কেউ যাবো না এবং এইটা হলো প্রিন্সিপাল।

সানাউল্লাহ: আচ্ছা।

জাফরুল্লাহ: সুতরাং আমার মতে এইটাকে আমাদের প্রিন্সিপাল একটা করা উচিত আমরা যাবো না শরীর খারাপ না, প্রিন্সিপালের ব্যাপার।

সানাউল্লাহ: হ্যা, ঠিক আছে।

জাফরুল্লাহ: এবং লইয়্যাররা ইউ শুড বয়কট ইট। আমরা কেউ যাচ্ছি। বয়কট কর, কর না! আইনজীবীর নামে কর, এটাও কর গিয়া।

সানাউল্লাহ: হম।

জাফরুল্লাহ: ডিফেন্সাররা তাহলে কেউ থাকবা না।

সানাউল্লাহ: আচ্ছা, ঠিক আছে।

জাফরুল্লাহ: আমার মনে হয় তোমাদের এটা একটু ভাই দেখা উচিত।

সানাউল্লাহ: আমরা ঐ যে সিনিয়র লয়্যাইয়াররা একটু বাইরে আছি।

জাফরুল্লাহ: আমি ফোন করেছিলাম জয়নুল আবেদীনরে পাই নাই। আমি বলতে চাচ্ছি যে, ইউ শুড বয়কট ইট।

সানাউল্লাহ: হ্যা, সিনিয়ররা কেউ নাই।

জাফরুল্লাহ: খোকনকেও করেছিলাম পাই নাই।

সানাউল্লাহ: হ্যা, তিনজনেই বাইরে আছি। ওরা আসবে কালকের মধ্যেই চলে আসবে।

জাফরুল্লাহ: আচ্ছা, আসলে তো ঠিকই আছে। আমার প্রস্তাবটা একটু বল, উই আর বয়কট ইট। কোর্ট না বদলালে আমরা যাবো না। উনার অসুস্থ বলে না। প্রিন্সিপলের ব্যাপার, সেটাই বলতে চাচ্ছিলাম।

সানাউল্লাহ: আচ্ছা...।

জাফরুল্লাহ: ঠিক আছে? আমি বুঝাইতে পারসি?

সানাউল্লাহ: জ্বি বুজছি।

এমএ