ঢাকা শুক্রবার, ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ই আশ্বিন ১৪২৬


সীমান্তে চীনের শক্তি বৃদ্ধি নিয়ে চিন্তিত ভারত


১৬ মে ২০১৯ ১৫:০৬

আপডেট:
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৭:২৮

চীন ও ভারতের মধ্যে ফের উত্তেজনা বাড়াল বেইজিং। সীমান্তে থাকা বিমান বাহিনীর বেস ক্যাম্পে শক্তি বৃদ্ধি করতে শুরু করেছে চীন। সিকিমে ভারত চীন সীমান্তে বিমান বাহিনীর ঘাঁটিতে একের পর এক মজুত করা হচ্ছে ঈগল জেট ইউএভি, এইচ-৬কে বোম্বারের মত বিধ্বংসী অস্ত্র। এর সবকটি মূলত চীনা আকাশ বাহিনীর ড্রোন। সীমান্তের নজরদারিতে চীনের এই পদক্ষেপে চিন্তিত ভারত।

জানা যায়, আন আর্মড ভেহিক্যাল বা ইউএভি ঈগল জেট চীনের গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। চীনা বিমান বাহিনীর মারণাস্ত্র ঈগল জেট, যেটা সয়ংক্রীয়ভাবে পরিচালনা করা হয়। এতে রয়েছে ইলেকট্রো ম্যাগনেটিক পদ্ধতি। যার সাহায্যে সীমান্তের খুঁটিনাটি তথ্য চলে যাবে বেজিংয়ের হাতে। এরই সঙ্গে রয়েছে এইচ-৬কে বোম্বার। এটি দুটি ইঞ্জিন বিশিষ্ট মাঝারি পাল্লার বোম্বার। সোভিয়েত ইউনিয়নের এই বোম্বারের অত্যাধুনিক ভার্সন রয়েছে চীনের হাতে। যেটা দূরপাল্লার নিশানায় আঘাত করতে সক্ষম।

সিকিমে ভারত চীন সীমান্ত থেকে মাত্র ২০০ কিমি দূরে নিজেদের বেসক্যাম্প সাজাচ্ছে চীন। এই তথ্য পেয়ে যথেষ্ট চিন্তিত নয়াদিল্লি। চীনের এই সীমান্তের কাছে এসে বিমান বাহিনীর ক্যাম্পের শক্তি বৃদ্ধিকে ভালো চোখে দেখছে না ভারত। নয়াদিল্লির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কোনোরকম উস্কানিমূলক আচরণ বরদাস্ত করবে না ভারত।

 

নতুনসময়/এনএইচ