ঢাকা মঙ্গলবার, ৭ই জুলাই ২০২০, ২৪শে আষাঢ় ১৪২৭


ইউরোপের ভিসা তালিকায় ভারত-মিয়ানমার, নেই বাংলাদেশ


২৯ জুন ২০২০ ০০:০১

আপডেট:
৭ জুলাই ২০২০ ১৫:৩৭

চীনের পরই করোনা ভাইরাসের সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি ছিল ইউরোপের দেশগুলো। চেপে ধরা এই অবস্থা এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রিত। তাই তারা তাদের দেশগুলোর সীমানা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

দুবাই ভিত্তিক গালফ নিউজ জানিয়েছে, জুলাইয়ের শুরুতে ইইউ দেশগুলোর সীমানা উন্মুক্ত হচ্ছে। এর ফলে চালু হতে যাচ্ছে মহাদেশটির সেনজেন এলাকার দেশগুলোতে বিমান চলাচল। সেনজেনভুক্ত দেশগুলো ৫৪টি দেশের নাম প্রকাশ করেছে যারা ভিসা পাবে।

৫৪টি এই দেশের মধ্যেই নেই বাংলাদেশ। তবে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের শীর্ষ থাকা ভারত থাকলেও নেই পাকিস্তান। আছে মিয়ানমার ও ভুটান। নেই নেপালের নামও।

মহামারী পরিস্থিতি এবং প্রত্যেক দেশে করোনা ভাইরাস নিয়ে তাদের ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে এই তালিকা হালনাগাদ করা হবে বলে জানান ইইউ কর্মকর্তারা।

সেনজেন অঞ্চলের ভিসা তালিকায় থাকা দেশগুলো হচ্ছে: আলবেনিয়া, আলজেরিয়া, অ্যান্ডোরা, অ্যাঙ্গোলা, অস্ট্রেলিয়া, বাহামাস, ভুটান, বসনিয়া এবং হার্জেগোভিনা, কানাডা, চীন, কোস্টারিকা, কিউবা, উত্তর কোরিয়া, ডোমিনিকা, মিশর, ইথিউপিয়া, জর্জিয়া, গায়ানা, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, জ্যামাইকা, জাপান, কাজাখস্তান, কসোভা, লেবানন, মরিশাস, মোনাকো, মঙ্গোলিয়া, মন্টিনিগ্রো, মরোক্কো, মোজাম্বিক, মিয়ানমার, নামিবিয়া, নিউজিল্যান্ড, নিকারাগুয়া, পালাউ, প্যারাগুয়ে, রুয়ান্ডা, সেন্ট লুসিয়া, সার্বিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, তাজিকিস্তান, থাইল্যান্ড, তিউনিসিয়া, তুরস্ক, উগান্ডা, তুর্কমেনিস্তান, ইউক্রেন, উরুগুয়ে, ভ্যাটিকান সিটি, ভেনেজুয়েলা, ভিয়েতনাম এবং জাম্বিয়া।

মানুষের যাতায়াত সহজ করার লক্ষ্যে ইউরোপীয় দেশগুলোকে একীভূত করে এই সেনজেন অঞ্চলের সৃষ্টি হয়। ১৯৮৫ সালে লুক্সেমবার্গের সেনজেন শহরে একটি চুক্তি সাক্ষর করে কয়েকটি ইউরোপীয় দেশ। বলা যায় সেই চুক্তির ধারাবাহিকতাতেই সৃষ্টি হয়েছে সেনজেন এলাকা এবং সেনজেন ভিসা।

অস্ট্রিয়া, আইসল্যান্ড, ইতালি, এস্তোনিয়া, গ্রিস, চেক রিপাবলিক, জার্মানি, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ড, নরওয়ে, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, ফ্রান্স, ফিনল্যান্ড, বেলজিয়াম, মাল্টা, লুক্সেমবার্গ, লাতভিয়া, লিথুয়ানিয়া, স্পেন, স্লোভাকিয়া, স্লোভেনিয়া, সুইজারল্যান্ড, সুইডেন, হাঙ্গেরি -এই দেশগুলো সেনজেন দেশ। সেনজেন ভিসা দিয়ে সবগুলো দেশ ঘুরে আসা যায়। দেশগুলোর মধ্যে কোনো সীমানা নিয়ন্ত্রণও নেই। ফলে ভিসা তালিকায় থাকা ৫৪টি দেশের বাইরের নাগরিকেরা সেনজেনভুক্ত এসব দেশে ভ্রমণ করতে পারবেন না।