ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ১৭ই অক্টোবর ২০১৯, ৩রা কার্তিক ১৪২৬


পাকিস্তানে নীরব অভ্যুত্থানের জোর গুজব, অভ্যুত্থানপটু ১১১ ব্রিগেডের ছুটি বাতিল


৪ অক্টোবর ২০১৯ ২০:২২

আপডেট:
১৭ অক্টোবর ২০১৯ ১২:০৩

নতুন সময়

পাকিস্তানের আইএসপিআর জানিয়েছে গত বুধবার দেশটির শীর্ষ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন দেশটির সেনাপ্রধান জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়া। এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না ইমরান খান। জানা গেছে দেশটির অর্থনৈতিক দূরাবস্তায় তিতিবিরক্ত হয়ে ব্যবসায়ীরা বাজওয়াকে দায়িত্ব গ্রহণের অনুরোধ জানিয়েছেন! এছাড়াও গুজবের পালে হাওয়া লাগিয়েছে অভ্যুত্থানের জন্য ‘বিখ্যাত’ ১১১ ব্রিগেডের সকল সদস্যের ছুটি বাতিল প্রসঙ্গও। দ্য উইক ও ইয়ন টিভি।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন জেনারেল বাজওয়া। আর জাতিসংঘ থেকে ফেরার পর ইমরান খানের সরকারি কাজে উপস্থিতি কমে গিয়েছে। এর মধ্যে শীর্ষ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বাজওয়ার বৈঠকে সন্দেহ উদ্রেক হওয়াই স্বাভাবিক। এছাড়াও আইএসপিআর বলছে এই বৈঠকে মূলত ব্যবসা নিয়ে নয়, আলোচনা হয়েছে দেশের অভ্যন্তরীন নিরাপত্তা বিষয়ে। পাকিস্তানে অভ্যুত্থান হতে পারে এই সম্ভাবনা বাড়িয়ে তুলেছে বৃহস্পতিবার বাজওয়ার আরো একটি বৈঠক। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ১০ জন কোর কমান্ডারের সবার সঙ্গেই এদিন বৈঠক করেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান।

যদিও বলা হচ্ছে কোর কমান্ডারদের সঙ্গে বৈঠকের প্রধান আলোচ্য ছিলো কাশ্মীর ও ভারতের আচরণ। এরপরে আইএসপিআর এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, কাশ্মীর নিয়ে ভারতের যে কোন অন্যায় আচরণের দাঁতভাঙা জবাব দিতে প্রস্তুত রেকার কমান্ডাররা। এই বৈঠকে বাজওয়া কাশ্মীরকে পাকিস্তানের প্রধান রক্তবাহী নালী বলেও উল্লেখ করেন। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কাশ্মীর নিয়ে উত্তেজনা তুঙ্গে থাকার সময়েও এভাবে কোর কমান্ডারদের তলব করেনি বাজওয়া। এই ধরণের হঠাৎ বৈঠকের কারণ সামরিক হওয়ার চেয়ে রাজনৈতিক হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে সবচেয়ে বড় চমক ১১১ ব্রিগেডের সব সদস্যের ছুটি বাতিলের বিষয়টি। এই ব্রিগেডটি পাকিস্তানের ৩টি সামরিক অভ্যুত্থানের সঙ্গেই অতোপ্রতোভাবে জড়িত। ইস্কান্দার মির্জার বিরুদ্ধে আইয়ুব খান, জুলফিকার আলি ভুট্টোর বিরুদ্ধে জিয়াউল হক আর নওয়াজ শরীফের বিরুদ্ধে পারভেজ মোশাররফের অভ্যুত্থানে যুক্ত ছিলো এই ব্রিগেড। বর্তমানে তারা প্রধানমন্ত্রী ও রাজধানী ইসলামাবাদের নিরাপত্তায় বিশেষ দায়িত্ব পালন করছে। মজার বিষয় হলো, এর আগের অভ্যুত্থানগুলোর সময়ও এই ব্রিগেড একই দায়িত্ব পালন করছিলো এবং একইভাবে তাদের ছুটি বাতিল করা হয়েছিলো।

নতুনসময়/এসএম