ঢাকা শনিবার, ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ই আশ্বিন ১৪২৫


প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করলে, দেশের দায়িত্ব নেবে কে?


১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৫:০৭

আপডেট:
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৬:০১

তফসিল ঘোষণার আগে বিএনপি নেতাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগের দাবির প্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করবেন তাহলে দেশের দায়িত্ব নিবেন কে? মির্জা ফখরুল! মামা বাড়ির আবদার। সবকিছুই সংবিধান অনুযায়ী চলবে আমরা সংবিধানের বাইরে যাব না।

ঢাকা পরিবহণ সমন্বয় কর্তৃপক্ষের পরিচালনা পর্ষদের ১১ তম সভায় বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, পরিষ্কারভাবে বলতে চাই নির্বাচন হবে পবিত্র সংবিধান অনুযায়ী। সরকার কোনো চাপের কাছে নতি স্বীকার করবে না।

নির্বাচনের আগে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির যে দাবি বিএনপির নেতারা করেছেন তার জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেবে আদালত। এখানে সরকারের কিছু করার নেই। সরকার যদি আদালতের উপর হস্তক্ষেপ করতোই তাহলে ৩০টির ওপরে মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন পেতেন না। বারবার বলেছি আবারো বলছি এটা আদালতের বিষয়।

তফসিল ঘোষণার আগে পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার যে দাবি বিএনপির পক্ষ থেকে করা হয়েছে তা উড়িয়ে দিয়ে কাদের বলেন: অক্টোবর মধ্যমিক এরপর সংসদ আর বসবে না। মন্ত্রীরা শুধু রুটিন ওয়ার্ক করবেন। সংসদ আনুষ্ঠানিকভাবে ভাঙ্গা হবে না তবে সংসদ বসবে না। যদি দেশে যুদ্ধ অবস্থা সৃষ্টি না হয়। মিয়ানমারের সঙ্গে যখন আমরা যুদ্ধ করলাম না আর কার সাথে যুদ্ধ করা লাগবে! তারা তাদের হেলিকপ্টার দিয়ে বার বার আকাশসীমা লংঘন করে আমাদেরকে উস্কানি দিয়েছে তারপরও আমরা যুদ্ধের পথে হাঁটিনি।

জাতিসংঘে বিএনপির আমন্ত্রণ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ কি ভাবছে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারা জাতিসংঘসহ বিভিন্ন বিদেশি সংস্থার কাছে অবিরাম নালিশ করে চলেছে। আবারও হয়তো তারা দিবে। তবে, ডাকলে যেতেই পারে। এখানে সরকার কিংবা আওয়ামী লীগের কোনো আপত্তি নেই।

জনগণই আমাদের শক্তি। জাতিসংঘ ডাকতে পারে, কথা বলতে পারে কিন্তু আমাদের সিদ্ধান্ত আমরাই নিব। সংবিধান বহির্ভূত কোনো চাপের কাছে নতি স্বীকার করবো না।

আইএমটি/এমএ