ঢাকা বুধবার, ১৯শে ডিসেম্বর ২০১৮, ৫ই পৌষ ১৪২৫


RIP কোন মৃত ব্যক্তির উপকারে আসবে না


১৯ অক্টোবর ২০১৮ ১৩:১৪

আপডেট:
১৯ অক্টোবর ২০১৮ ১৩:২৪

ছবি সংগৃহীত

কেউ মারা গেলে শুরু হয় ফেইসবুকে RIP এর ঝড়। মুসলিম হোক আর অমুসলিম হোক কেউই বাদ যাচ্ছে না এই RIP থেকে। আর দুঃখজনক হলেও সত্যি এই RIP কালচার এর বেশীরভাগই মুসলিম। RIP এমন একটা পর্যায়ে পৌঁছে গেছে যে অ্যাকুয়ারিয়ামের মরা মাছ থেক শুরু করে গৃহপালিত পশু, পাখী, কুকুর, বিড়াল কিছুই বাদ যাচ্ছে না RIP থেকে। সত্যিই আপনি কতই না স্মার্ট আর কিউট যে অ্যাকুয়ারিয়ামের মোরে যাওয়া মাছের ছবিও ফেইসবুকে পোস্ট করে RIP দিয়ে দিচ্ছেন। আফসোস! RIP তো বাদ দিলাম কেউ আরও এক ধাপ এগিয়ে সাথে যোগ করছেন ভাল থাকবেন ওপারে, বিশ্বাস করতে পারছি না, অসময়েই চলে গেলেন এমন আরও কত কি।

এই একটি বিষয়ই প্রমাণ করে যে বর্তমান সমাজের মুসলিমরা যতই উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হোক না কেন তাদের প্রয়োজনীয় ন্যূনতম ধর্মীয় শিক্ষাটুকু বা ধর্মীয় বোধটুকু একবারেই তলানিতে। একজন মুসলিম মারা গেলে আরেকজন মুসলিম কি করবে? কি বলবে? বা কি বলে সে মৃত ব্যাক্তির জন্যে আল্লাহর কাছে দোয়া করবে? এটা সকল মুসলিমই জানেন। এবং এটা শেখার জন্যে হাফেজ, মুফতি, আলেম হবারও প্রয়োজন নেই। জানে আসলে সবাই কিন্তু তারপরও আল্লাহ ও তার রাসুল(সাঃ) এর শিখানো এত সুন্দর সুন্দর কথা বাদ দিয়ে সবার RIP ই পছন্দ। অথচ এই RIP কথাটি মৃত ব্যাক্তির কোন উপকারেই আসবে না।

একজন মুসলিম ব্যাক্তির মৃত্যু খবর পাওয়ার সাথে সাথে আপনি বলতে পারেন "ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন" যার অর্থঃ আমরা আল্লাহরই এবং নিশ্চয়ই আমরা আল্লাহরই দিকে প্রত্যাবর্তনকারী। কত সুন্দর কথা। আপনি বলতে পারেন "হে আল্লাহ তুমি তাকে মাফ করে দাও"। আরও অনেক সুন্দর সুন্দর কথা আছে যেগুলো আল্লাহর নাম নিয়েই বলা হয়। আর এই কথা গুলো জানে না এমন কেউ কি আছেন? একজন মুসলিমের অন্তত এই কথাগুলো বলতে কোন লজ্জা লাগার কথা না। যেহেতু আপনি একজন মুসলিম এবং আরেকজন মুসলিমের জন্যে ক্ষমা চাচ্ছেন হতেও পারে আল্লাহ আপনার দোয়ার জন্যেও তাকে ক্ষমা করে দিতেও পারেন। এটা আল্লাহই ভাল জানেন কিন্তু আমারা তার জন্যে শুধু দোয়াই করতে পারি যদি সে মুসলিম হয়। কিন্তু কোনভাবেই RIP মৃত ব্যক্তির কোন উপকারেই আসবে না বরং আপনি উল্টা গুনাহগার হতে পারেন। আল্লাহই ভাল জানেন।

ফেইসবুক খুললেই দেখা যায় টাইমলাইনের RIP তাপমাত্রার ঊর্ধ্বগতি। বৃহস্পতিবার সকালে গিটারিস্ট ও ভোকালিস্ট আইয়ুব বাচ্চু মৃত্যুবরন করেছেন। তাই RIP এর বন্যা বয়ে যাচ্ছে টাইমলাইনে। মানে সবাই বোঝাতে চাচ্ছেন যে কতই না ভালবাসতেন তাকে। অথচ খুব কম মানুষের স্ট্যাটাস এ দেখলাম তার জন্যে দোয়া করে কিছু লিখেছেন। যেহেতু তিনি মুসলিম ছিলেন তাই আরেকজন মুসলিমের এখন উচিৎ তার জন্যে দোয়া করা আর ওটাই হয়ত আল্লাহ চাইলে তার কাজে লাগবে কিন্তু RIP অবশ্যই না।

কিছুই না লিখেন তাও ভাল কিন্তু সকল মুসলিমের প্রতি অনুরোধ থাকবে যে RIP কিংবা তার সাথে ভাল থাকবেন ওপারে, অসময়েই চলে গেলেন এই টাইপ কথা গুলো লিখবেন না। তাতে মৃত ব্যাক্তির কোন লাভ লোকসান না হলেও আপনি অন্তত একটি হলেও গুনাহর হাত থেকে বেচে যাবেন।

লেখক: কামরুজ্জামান সোহেল
আইটি বিশেষজ্ঞ

আরকেএইচ