ঢাকা বুধবার, ১৪ই নভেম্বর ২০১৮, ১লা অগ্রহায়ণ ১৪২৫


বেড়েই চলছে ক্ষুধার্ত মানুষের সংখ্যা : জাতিসংঘ


১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৮:২৪

আপডেট:
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৮:৪৫

মাঝে কমলেও গত তিন বছরে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বিশ্বে আবারও বেড়ে চলেছে ক্ষুধার্ত মানুষের সংখ্যা এমন তথ্য উঠে এসেছে জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে

জাতিসংঘের ওই প্রতিবেদনে ক্ষুধার্ত মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার  তথ্য তুলে ধরে বিশ্বনেতাদের দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানানো হয় বলে বিবিসি জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বের প্রতি ৯ জনের ১জন প্রয়োজনীয় পুষ্টি পায় না। ২০১৭ সালে বিশ্বের ৮২ কোটি ১০ লাখ মানুষ ছিল অপুষ্টির শিকার।

আর পুষ্টিহীনতায় কারণে প্রায় ১৫ কোটির দৈহিক স্বাভাবিক বিকাশ আটকে আছে ।যাদের বয়স ৫ বছরের নিচে। এই সংখ্যা বিশ্বের মোট শিশুর প্রায় ২২ শতাংশ।

প্রতিবেদন তৈরিকারীরা বলছেন, নানান প্রাকৃতিক দুর্যোগই এই সঙ্কটের জন্য অনেকটা দায়ী।

জাতিসংঘ খাদ্য ও কৃষি সংস্থা, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি, ইউনিসেফ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল সম্মিলিতভাবে এই প্রতিবেদনটি তৈরি করিয়েছে।

গবেষকরা বলছেন, বিশ্বের জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বেড়ে গেছে বন্যা, তাপদাহ, ঝড়, খরা যা ব্যাহত করছে শস্য উৎপাদন।

যেসব দেশে ফসল ফলাতে বৃষ্টির উপর নির্ভরশীল, সে সব দেশের পরিস্থিতি চরম অবস্থায় পৌঁছেছে।
জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে বিভিন্ন দেশে যুদ্ধ ও সহিংসতাও ক্ষুধার্ত মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রেখেছে বলে মনে বরেছেন বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এই সঙ্কট থেকে উত্তরণে বিশ্বের দেশগুলোর সমন্বিত চেষ্টা চালানোর উপর জোর দেওয়া হয় প্রতিবেদনে।

এই প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়া অক্সফামের রবিন উইলোবি বিবিসিকে বলেছেন , “এটা খুবই দুঃখজনক যে ক্ষুধার্ত মানুষের সংখ্যা কমে আসার পর তা আবার গত ৩ বছর বাড়ছে।

এসএমএন